ঢাকা , সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন মৌসুমি সরকার শাহরাস্তিতে দেবরের কোদালের কোপে ভাবির মৃত্যু প্রিয় নেতাকে বিজয়ী করতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে শরিফ খান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মৌসুমিকে বিজয়ী করতে চায় জনগণ আবদুল জলিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হবেন বলে জানালেন সাধারণ জনতা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মৌসুমী সরকার শাহরাস্তি উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ওমর ফারুক রুমির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় শাহরাস্তিতে সাংবাদিকদের সাথে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ ইরানের মতবিনিময় শাহরাস্তিতে সাংবাদিকদের সাথে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজমুন নাহার স্বপ্নার মতবিনিময়

শাহরাস্তিতে গৃহবধূর শ্লীলতাহানির ঘটনায় সালিশ বৈঠকে মারধর, আহত-৫, থানায় অভিযোগ

চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে শ্লীলতাহানির ঘটনা মিমাংসা করার বৈঠকে প্রতিবাদীদের উপর হামলা করেছে ঘটনাকারী পরিবার। এতে ৫ জন আহত হয়েছে। আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা গ্রহন করেছেন। এবিষয়ে ঘটনার শিকার গৃহবধূ বাদী হয়ে ৩ জনকে বিবাদী করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

ঘটনাটি ১৭ এপ্রিল, বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার সূচীপাড়া উত্তর ইউনিয়নের নবাবপুর গ্রামে।

জানা যায়, ওই গ্রামের বসু বাড়ির ইমান হোসেনের কন্যাকে প্বার্শবর্তি দৈকামতা গ্রামের বাচ্চু মিয়ার সাথে গত ৮ মাস পূর্বে বিয়ে দেন। পবিত্র ঈদুল ফিতরে বেড়াতে স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি আসছিলো সে। ঘটনার দিন ও সময়ে একই বাড়ির নুর আহমেদের পুত্র শিপনের সাথে অশ্লীল কোন ঘটনা ঘটেছে মর্মে অভিযোগ গৃহবধূর।

থানায় অভিযোগের আলোকে জানা যায়, ১৫ এপ্রিল সোমবার রাত ৯টায় শ্বশুরালয় থেকে পিত্রালয়ে ফেরার পথে নিজ বাড়ির সামনে বাগান সংলগ্ন জায়গায় একই বাড়ির নুর আহমেদের পুত্র শিপন দ্বারা শ্লীলতাহানীর শিকার হয় গৃহবধূ। এঘটনায় ১৭ এপ্রিল বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় স্থানিয় মহিলা মেম্বার সেলিনার বসত ঘরে সালিশ বৈঠকে বসে। ওই বৈঠকে ১ ও ২নং বিবাদী অভিযোগের বাদী গৃহবধূকে মারধর করে। এতে ৫ জন আহত হয়।

এবিষয়ে ওই গৃহবধূ বলেন, স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে আসার পথে শিপন কাকার সাথে দেখা হয়। তখন রাত প্রায় ৯ বাজে। তিনি আমার সাথে পায়ে হেটে বাড়ি আসছিলেন। বাড়ির সামনে বাগানের কাছে আসলে তিনি আমাকে জড়িয়ে ধরে আমার শালিনতা নষ্ট করেন। বিষয়টি আমি বাড়ির মুরব্বি ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের অবহিত করি। একদিন পর মহিলা মেম্বার সেলিনার ঘরে দরবারে বসলে শিপন, রিপন ও মহিলা মেম্বার সেলিনা আমাকে মারধর শুরু করে। এসময় আমার স্বামী, ছোট চাচা, ফুফু ও ছোট ভাই আমাকে বাঁচাতে আসলে তারা তাদের হামলায় আহত হন। এবিষয়ে আমি থানায় অভিযোগ দিয়েছি। এঘটনার সুষ্ঠু বিচার প্রার্থনা করেন তিনি।

ঘটনার বিষয়ে জানতে শিপনের ঘরে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। এসময় ওই বাসায় শুধু শিপনের স্ত্রী ছিলো। এব্যাপারে তাকে জিজ্ঞেস করলে তিনি এবিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান।

Facebook Comments Box
Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ

শাহরাস্তিতে গৃহবধূর শ্লীলতাহানির ঘটনায় সালিশ বৈঠকে মারধর, আহত-৫, থানায় অভিযোগ

Update Time : ১১:৩৮:৫০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে শ্লীলতাহানির ঘটনা মিমাংসা করার বৈঠকে প্রতিবাদীদের উপর হামলা করেছে ঘটনাকারী পরিবার। এতে ৫ জন আহত হয়েছে। আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা গ্রহন করেছেন। এবিষয়ে ঘটনার শিকার গৃহবধূ বাদী হয়ে ৩ জনকে বিবাদী করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

ঘটনাটি ১৭ এপ্রিল, বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার সূচীপাড়া উত্তর ইউনিয়নের নবাবপুর গ্রামে।

জানা যায়, ওই গ্রামের বসু বাড়ির ইমান হোসেনের কন্যাকে প্বার্শবর্তি দৈকামতা গ্রামের বাচ্চু মিয়ার সাথে গত ৮ মাস পূর্বে বিয়ে দেন। পবিত্র ঈদুল ফিতরে বেড়াতে স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি আসছিলো সে। ঘটনার দিন ও সময়ে একই বাড়ির নুর আহমেদের পুত্র শিপনের সাথে অশ্লীল কোন ঘটনা ঘটেছে মর্মে অভিযোগ গৃহবধূর।

থানায় অভিযোগের আলোকে জানা যায়, ১৫ এপ্রিল সোমবার রাত ৯টায় শ্বশুরালয় থেকে পিত্রালয়ে ফেরার পথে নিজ বাড়ির সামনে বাগান সংলগ্ন জায়গায় একই বাড়ির নুর আহমেদের পুত্র শিপন দ্বারা শ্লীলতাহানীর শিকার হয় গৃহবধূ। এঘটনায় ১৭ এপ্রিল বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় স্থানিয় মহিলা মেম্বার সেলিনার বসত ঘরে সালিশ বৈঠকে বসে। ওই বৈঠকে ১ ও ২নং বিবাদী অভিযোগের বাদী গৃহবধূকে মারধর করে। এতে ৫ জন আহত হয়।

এবিষয়ে ওই গৃহবধূ বলেন, স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে আসার পথে শিপন কাকার সাথে দেখা হয়। তখন রাত প্রায় ৯ বাজে। তিনি আমার সাথে পায়ে হেটে বাড়ি আসছিলেন। বাড়ির সামনে বাগানের কাছে আসলে তিনি আমাকে জড়িয়ে ধরে আমার শালিনতা নষ্ট করেন। বিষয়টি আমি বাড়ির মুরব্বি ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের অবহিত করি। একদিন পর মহিলা মেম্বার সেলিনার ঘরে দরবারে বসলে শিপন, রিপন ও মহিলা মেম্বার সেলিনা আমাকে মারধর শুরু করে। এসময় আমার স্বামী, ছোট চাচা, ফুফু ও ছোট ভাই আমাকে বাঁচাতে আসলে তারা তাদের হামলায় আহত হন। এবিষয়ে আমি থানায় অভিযোগ দিয়েছি। এঘটনার সুষ্ঠু বিচার প্রার্থনা করেন তিনি।

ঘটনার বিষয়ে জানতে শিপনের ঘরে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। এসময় ওই বাসায় শুধু শিপনের স্ত্রী ছিলো। এব্যাপারে তাকে জিজ্ঞেস করলে তিনি এবিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান।

Facebook Comments Box