ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন আমি ৯৬ সালের রফিকুল ইসলাম নই, আমি ২৪ সালের রফিকুল ইসলাম স্ত্রী নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে প্রবাসী খোরশেদ আলমের সাংবাদিক সম্মেলন শাহরাস্তিতে জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন মৌসুমি সরকার শাহরাস্তিতে দেবরের কোদালের কোপে ভাবির মৃত্যু প্রিয় নেতাকে বিজয়ী করতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে শরিফ খান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মৌসুমিকে বিজয়ী করতে চায় জনগণ আবদুল জলিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হবেন বলে জানালেন সাধারণ জনতা

শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অশ্রুসিক্ত নয়নে সাংবাদিকদের বিদায় সংবর্ধনা

আমি যেখানেই থাকবো শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সাথে থাকতে চাই

 ….. ইউএনও হুমায়ূন রশিদ

শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ন রশিদ কে বিদায় সংবর্ধনা দিয়েছে শাহরাস্তি প্রেসক্লাব। ১১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সাংবাদিকদের  অংশগ্রহণে এ বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়। শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজলের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক স্বপন কর্মকার মিঠুন ও সম্মানিত সদস্য ফয়েজ আহমেদের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আহসান উল্লাহ।

আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি রেজওয়ানা চৌধুরী, সিনিয়র পুলিশ সুপার (কচুয়া সার্কেল) রেজওয়ান সাঈদ জিকো, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সুচিপাড়া ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মোঃ হুমায়ুন কবির ভূঁইয়া, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) খায়রুল আলম, রোটারিয়ান ডাঃ মাসুদ হাসান, উপজেলা প্রকৌশলী মেহেদী হাসান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আয়শা আক্তার, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ সবুজ, সহকারী প্রোগ্রামার মোঃ শাহজাহান, শাহরাস্তি পল্লী বিদ্যুৎ ডিজিএম মোবারক হোসেন সরকার।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ফারুক আহমেদ চৌধুরী, যুগ্ন সম্পাদক কামরুজ্জামান সেন্টু, অর্থ সম্পাদক মোঃ জামাল হোসেন, প্রেসক্লাবের সহযোগি সদস্য মোঃ হাসানুজ্জামান, রফিকুল ইসলাম পাটোয়ারী, হাসান আহমেদ বাবলু, ফয়সাল আহমেদ।

বিদায় সংবর্ধিত অতিথি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হুমায়ুন রশিদ তার আবেগ জনিত বক্তব্যে বলেন, আমি হাসিখুশি মানুষ কিন্তু এভাবে শাহরাস্তি উপজেলা থেকে বিদায় নিতে হবে তা কখনো ভাবিনি। ডাকাতিয়া নদীর পানি গুলো যেমন নরম হয়ে থাকে শাহরাস্তির মানুষ গুলো তেমনি নরম। আমি অত্যন্ত সৌভাগ্যবান শাহরাস্তির সাংবাদিকগন আমাকে যে আপন করে নিয়েছেন সেটা তাদের বদান্যতা ও তাদের মনের উদারতার প্রকাশ। তারা কখনোই বিনিময়ে আমার কাছে কোন কিছু চায়নাই। শাহরাস্তি প্রেসক্লাব গতিশীল করার জন্য তারা আমার কাছে আসতো আমি কিছু পরামর্শ দিয়েছি মাত্র। আমি যেখানেই থাকবো শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সাথে থাকতে চাই। শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের ভবনের কার্যক্রম বাস্তবায়ন হউক এটা আমারাও ইচ্ছা তবে দুঃখ হয় দেখে যেতে পারলাম না। 

তিনি বলেন, মফস্বলে সাংবাদিকতা চালিয়ে যাওয়া অনেক কষ্টের শত প্রতিকূলতার মধ্যেও আপনারা এ পেশা ধরে রেখেছেন সেই জন্য ধন্যবাদ। আমার দায়িত্ব পালনে আপনারা কোন প্রতিকূলতা সৃষ্টি করেননি। আমি একটা কথা বিশ্বাস করি শাহরাস্তিতে কোন কিছু না থাকলেও শান্তি আছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আহসান উল্লাহ বলেন, একজন নির্বাহী কর্মকর্তাকে সাংবাদিক মহল থেকে এভাবে বিদায় জানানোর ঘটনা বিরল। শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের অগ্রযাত্রায় আপনার সহযোগিতা মনে থাকবে। একজন জনবান্ধব কর্মকর্তা হিসেবে আপনি সবার মন জয় করে নিয়েছেন। যেখানেই থাকবেন ভালো থাকবেন।

অনুষ্ঠান শেষে বিদায়ী অতিথির হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল ও সাধারণ সম্পাদক স্বপন কর্মকার মিঠুন। এছাড়া দৈনিক জনপদ বার্তা’র পক্ষে সম্পাদক রাফিউ হাসান হামজা, মনিরুজ্জামান, শাহ্ আলম সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন। এছাড়াও শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সহযোগি সদস্যগন প্রেসক্লাবের পক্ষে বিভিন্ন অতিথিদের হতে শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন। শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর হেলাল ও সিনিয়র সহ-সভাপতি সজল পালের নেতৃত্বে রাতের খাবারের আয়োজন সফল ভাবে সম্পন্ন হয়।

Facebook Comments Box
Tag :

মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন

শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অশ্রুসিক্ত নয়নে সাংবাদিকদের বিদায় সংবর্ধনা

Update Time : ০২:৫২:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর ২০২৩

আমি যেখানেই থাকবো শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সাথে থাকতে চাই

 ….. ইউএনও হুমায়ূন রশিদ

শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ন রশিদ কে বিদায় সংবর্ধনা দিয়েছে শাহরাস্তি প্রেসক্লাব। ১১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সাংবাদিকদের  অংশগ্রহণে এ বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়। শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজলের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক স্বপন কর্মকার মিঠুন ও সম্মানিত সদস্য ফয়েজ আহমেদের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আহসান উল্লাহ।

আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি রেজওয়ানা চৌধুরী, সিনিয়র পুলিশ সুপার (কচুয়া সার্কেল) রেজওয়ান সাঈদ জিকো, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সুচিপাড়া ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মোঃ হুমায়ুন কবির ভূঁইয়া, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) খায়রুল আলম, রোটারিয়ান ডাঃ মাসুদ হাসান, উপজেলা প্রকৌশলী মেহেদী হাসান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আয়শা আক্তার, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ সবুজ, সহকারী প্রোগ্রামার মোঃ শাহজাহান, শাহরাস্তি পল্লী বিদ্যুৎ ডিজিএম মোবারক হোসেন সরকার।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ফারুক আহমেদ চৌধুরী, যুগ্ন সম্পাদক কামরুজ্জামান সেন্টু, অর্থ সম্পাদক মোঃ জামাল হোসেন, প্রেসক্লাবের সহযোগি সদস্য মোঃ হাসানুজ্জামান, রফিকুল ইসলাম পাটোয়ারী, হাসান আহমেদ বাবলু, ফয়সাল আহমেদ।

বিদায় সংবর্ধিত অতিথি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হুমায়ুন রশিদ তার আবেগ জনিত বক্তব্যে বলেন, আমি হাসিখুশি মানুষ কিন্তু এভাবে শাহরাস্তি উপজেলা থেকে বিদায় নিতে হবে তা কখনো ভাবিনি। ডাকাতিয়া নদীর পানি গুলো যেমন নরম হয়ে থাকে শাহরাস্তির মানুষ গুলো তেমনি নরম। আমি অত্যন্ত সৌভাগ্যবান শাহরাস্তির সাংবাদিকগন আমাকে যে আপন করে নিয়েছেন সেটা তাদের বদান্যতা ও তাদের মনের উদারতার প্রকাশ। তারা কখনোই বিনিময়ে আমার কাছে কোন কিছু চায়নাই। শাহরাস্তি প্রেসক্লাব গতিশীল করার জন্য তারা আমার কাছে আসতো আমি কিছু পরামর্শ দিয়েছি মাত্র। আমি যেখানেই থাকবো শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সাথে থাকতে চাই। শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের ভবনের কার্যক্রম বাস্তবায়ন হউক এটা আমারাও ইচ্ছা তবে দুঃখ হয় দেখে যেতে পারলাম না। 

তিনি বলেন, মফস্বলে সাংবাদিকতা চালিয়ে যাওয়া অনেক কষ্টের শত প্রতিকূলতার মধ্যেও আপনারা এ পেশা ধরে রেখেছেন সেই জন্য ধন্যবাদ। আমার দায়িত্ব পালনে আপনারা কোন প্রতিকূলতা সৃষ্টি করেননি। আমি একটা কথা বিশ্বাস করি শাহরাস্তিতে কোন কিছু না থাকলেও শান্তি আছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আহসান উল্লাহ বলেন, একজন নির্বাহী কর্মকর্তাকে সাংবাদিক মহল থেকে এভাবে বিদায় জানানোর ঘটনা বিরল। শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের অগ্রযাত্রায় আপনার সহযোগিতা মনে থাকবে। একজন জনবান্ধব কর্মকর্তা হিসেবে আপনি সবার মন জয় করে নিয়েছেন। যেখানেই থাকবেন ভালো থাকবেন।

অনুষ্ঠান শেষে বিদায়ী অতিথির হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল ও সাধারণ সম্পাদক স্বপন কর্মকার মিঠুন। এছাড়া দৈনিক জনপদ বার্তা’র পক্ষে সম্পাদক রাফিউ হাসান হামজা, মনিরুজ্জামান, শাহ্ আলম সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন। এছাড়াও শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সহযোগি সদস্যগন প্রেসক্লাবের পক্ষে বিভিন্ন অতিথিদের হতে শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন। শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর হেলাল ও সিনিয়র সহ-সভাপতি সজল পালের নেতৃত্বে রাতের খাবারের আয়োজন সফল ভাবে সম্পন্ন হয়।

Facebook Comments Box