ঢাকা , শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
শাহরাস্তিতে জাতীয় বীমা দিবস পালিত কেক কাটার মধ্য দিয়ে পাঠক প্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল “প্রিয় চাঁদপুর” এর ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত শাহরাস্তির রায়শ্রী আল-আমিন হাফেজিয়া মাদ্রাসার বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল সম্পন্ন রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদকে ভূষিত হলেন ফরিদগঞ্জের শামছুন্নাহার এসএসসির প্রশ্ন ফাঁস: মনোহরগঞ্জে ২ শিক্ষক জেলে, প্রধান শিক্ষক পলাতক বদলে গেছে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে শ্রীপুরে র‍্যালি ও আলোচনা সভা শাহরাস্তি রেল স্টেশন বাজার কমিটি নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে মো.সাইফুল ইসলাম সকলের দোয়াপ্রার্থী বিডি হিউম্যান অর্গানাইজেশন এর আইসিটি অলিম্পিয়াড বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন  শাহরাস্তিতে পিতা-মাতাকে ঘর থেকে বের করে দেয়ায় গ্রেফতার পুত্র

শাহরাস্তিতে সম্পত্তিগত বিরোধে শত বছরের চলাচলের রাস্তা বন্ধ

শাহরাস্তিতে সম্পত্তিগত বিরোধে শতবছরের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়ায় ১০টি পরিবারের লোকজন যাতায়াতে বিপাকে পড়ে আছে।
উপজেলার সূচিপাড়া  দক্ষিণ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সংহাই মোল্লাবাড়িতে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে প্রতিবন্ধকতার ঘটনা ঘটে।
ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সূত্রে জানা যায় একই বাড়ির শামছুল হকের ছেলে মোঃ মোহন শনিবার দুপুরে শত বছরের বাড়ির চলাচলের রাস্তা সম্পত্তিগত বিরোধে বাঁশের বেড়া দিয়ে প্রতিবন্ধকতা করেন। এতে ওই বাড়ির ১০টি পরিবারের শতাধিক লোকজন ও স্কুল কলেজ, মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রছাত্রী এবং পরিবারের লোকজন দৈনন্দিন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র না আনতে পারায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। চলাচলের পথ খুলে দেওয়ার জন্য প্রশাসনের নিকট জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন বাড়ির লোকজন।
প্রতিবন্ধকতা থাকা বাড়ির আবুল কালাম, আব্দুল লতিফ, খোকন, আঃ মতিন, নাইদ,আলাউদ্দিন , এমরানগং জানান আমরা ৮ থেকে ১০টি  পরিবার পূর্ব পুরুষের আমল থেকে এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে আসছি। এখন হঠাৎ করে বাড়ির রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে আমাদেরকে আটকে রাখা হয়েছে। মোহন নিজের জায়গা দাবি করে আমাদের শত বছরের চলাচলের রাস্তা বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেন।
তারা আরো বলেন, অভিযুক্তকারী মোহনকে বেড়া খুলে দেওয়ার জন্য বলতে গেলে মোহন আমাদেরকে মারধর করতে আসেন, বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে থাকেন।
এই রাস্তা দিয়ে পরিবারের শতাধিক মানুষ চলাচল করে থাকেন। শুধু তাই নয়, পাড়ার ও ফসলি মাঠ থেকে ধান–পাটসহ বিভিন্ন কৃষি পণ্যও এই রাস্তা ব্যবহার করে লোকজন বাড়িতে নিয়ে আসেন।
১০টি পরিবার তাদের প্রায় বিভিন্ন স্থান ঘুরে স্থানীয় বাজারে আসা–যাওয়া করতে গিয়ে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ মিজানুর রহমান  জানান, দীর্ঘ দিন ধরে বাড়ির সম্পত্তিগত নিয়ে পরিমাপের বিরোধ চলছে। এ বিষয়ে বাড়ির জায়গা পরিমাপের জন্য পক্ষ-বিপক্ষ ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট লিখিত আবেদন দেন।আবেদনের প্রেক্ষিতে স্থানীয় ইউপি মেম্বারকে দায়িত্ব দেন। মেম্বার সেই অনুযায়ী সকলের সাথে বসে পরিমাপের সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু ৯ খতিয়ানের মালিক পরিমাপ কল্পে একমত পোষণ করেন, বাকি ৩খতিয়ানের মালিক পরিমাপের সিদ্ধান্ত না নেওয়া একই বাড়ির মোহন তার নিজের জায়গা দাবি করে চলাচলের রাস্তা বাশেঁর বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেন। আমি তাকে বেড়া উঠিয়ে নেওয়ার জন্য বলেছি। সে আমার কথা শুনেন না এবং চলাচলের রাস্তা বেড়ার কারণে পরিবারের লোকজন যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্তকারী মোঃ মোহন জানান আমাদের এ বাড়িতে ৭৪ শতক জায়গা রয়েছে। কিন্তু এখানে আমার পুরো জায়গা না থাকায় বাড়ির সম্পত্তি পরিমাপের জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট একটি আবেদন করি। বাড়ির লোকজন দীর্ঘদিন যাবৎ বাড়ি পরিমাপ করার জন্য টালবাহানা করায় আমার জায়গা দাবি করে বাড়ির চলাচলের রাস্তা বাঁশ দিয়ে বন্ধ করে দেই।আমার সম্পত্তি বুঝে না দেওয়া পর্যন্ত বেড়াটি থাকবে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মাহাতাব উদ্দিন আহমেদ হেলাল বলেন বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। এ বিষয়ে ইউপি মেম্বারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়াটা ঠিক হয়নি।

Facebook Comments Box
Tag :
About Author Information

RAFIU HASAN

শাহরাস্তিতে জাতীয় বীমা দিবস পালিত

শাহরাস্তিতে সম্পত্তিগত বিরোধে শত বছরের চলাচলের রাস্তা বন্ধ

Update Time : ০৪:৫৪:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩
শাহরাস্তিতে সম্পত্তিগত বিরোধে শতবছরের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়ায় ১০টি পরিবারের লোকজন যাতায়াতে বিপাকে পড়ে আছে।
উপজেলার সূচিপাড়া  দক্ষিণ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সংহাই মোল্লাবাড়িতে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে প্রতিবন্ধকতার ঘটনা ঘটে।
ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সূত্রে জানা যায় একই বাড়ির শামছুল হকের ছেলে মোঃ মোহন শনিবার দুপুরে শত বছরের বাড়ির চলাচলের রাস্তা সম্পত্তিগত বিরোধে বাঁশের বেড়া দিয়ে প্রতিবন্ধকতা করেন। এতে ওই বাড়ির ১০টি পরিবারের শতাধিক লোকজন ও স্কুল কলেজ, মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রছাত্রী এবং পরিবারের লোকজন দৈনন্দিন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র না আনতে পারায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। চলাচলের পথ খুলে দেওয়ার জন্য প্রশাসনের নিকট জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন বাড়ির লোকজন।
প্রতিবন্ধকতা থাকা বাড়ির আবুল কালাম, আব্দুল লতিফ, খোকন, আঃ মতিন, নাইদ,আলাউদ্দিন , এমরানগং জানান আমরা ৮ থেকে ১০টি  পরিবার পূর্ব পুরুষের আমল থেকে এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে আসছি। এখন হঠাৎ করে বাড়ির রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে আমাদেরকে আটকে রাখা হয়েছে। মোহন নিজের জায়গা দাবি করে আমাদের শত বছরের চলাচলের রাস্তা বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেন।
তারা আরো বলেন, অভিযুক্তকারী মোহনকে বেড়া খুলে দেওয়ার জন্য বলতে গেলে মোহন আমাদেরকে মারধর করতে আসেন, বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে থাকেন।
এই রাস্তা দিয়ে পরিবারের শতাধিক মানুষ চলাচল করে থাকেন। শুধু তাই নয়, পাড়ার ও ফসলি মাঠ থেকে ধান–পাটসহ বিভিন্ন কৃষি পণ্যও এই রাস্তা ব্যবহার করে লোকজন বাড়িতে নিয়ে আসেন।
১০টি পরিবার তাদের প্রায় বিভিন্ন স্থান ঘুরে স্থানীয় বাজারে আসা–যাওয়া করতে গিয়ে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ মিজানুর রহমান  জানান, দীর্ঘ দিন ধরে বাড়ির সম্পত্তিগত নিয়ে পরিমাপের বিরোধ চলছে। এ বিষয়ে বাড়ির জায়গা পরিমাপের জন্য পক্ষ-বিপক্ষ ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট লিখিত আবেদন দেন।আবেদনের প্রেক্ষিতে স্থানীয় ইউপি মেম্বারকে দায়িত্ব দেন। মেম্বার সেই অনুযায়ী সকলের সাথে বসে পরিমাপের সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু ৯ খতিয়ানের মালিক পরিমাপ কল্পে একমত পোষণ করেন, বাকি ৩খতিয়ানের মালিক পরিমাপের সিদ্ধান্ত না নেওয়া একই বাড়ির মোহন তার নিজের জায়গা দাবি করে চলাচলের রাস্তা বাশেঁর বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেন। আমি তাকে বেড়া উঠিয়ে নেওয়ার জন্য বলেছি। সে আমার কথা শুনেন না এবং চলাচলের রাস্তা বেড়ার কারণে পরিবারের লোকজন যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্তকারী মোঃ মোহন জানান আমাদের এ বাড়িতে ৭৪ শতক জায়গা রয়েছে। কিন্তু এখানে আমার পুরো জায়গা না থাকায় বাড়ির সম্পত্তি পরিমাপের জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট একটি আবেদন করি। বাড়ির লোকজন দীর্ঘদিন যাবৎ বাড়ি পরিমাপ করার জন্য টালবাহানা করায় আমার জায়গা দাবি করে বাড়ির চলাচলের রাস্তা বাঁশ দিয়ে বন্ধ করে দেই।আমার সম্পত্তি বুঝে না দেওয়া পর্যন্ত বেড়াটি থাকবে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মাহাতাব উদ্দিন আহমেদ হেলাল বলেন বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। এ বিষয়ে ইউপি মেম্বারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়াটা ঠিক হয়নি।

Facebook Comments Box