ঢাকা , শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
চেয়ারে বসলেন শ্রীপুর উপজেলার নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান,ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করেন শরিফ খান জনগণের আস্থার প্রতীক হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন এস এম শরিফ খান শাহরাস্তিতে নকলের দায়ে এক এইচএসসি পরীক্ষার্থী বহিস্কার বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মোঃ কামাল উদ্দিনের অভিনন্দন বার্তা মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন আমি ৯৬ সালের রফিকুল ইসলাম নই, আমি ২৪ সালের রফিকুল ইসলাম স্ত্রী নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে প্রবাসী খোরশেদ আলমের সাংবাদিক সম্মেলন শাহরাস্তিতে জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন মৌসুমি সরকার

‘পরিপূর্ণরূপে বিশ্ববিদ্যালয় হয়ে উঠুক’ – সাঈদুর জামান বাপ্পি

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় বয়সে নবীন বিশ্ববিদ্যালয় হলেও বিশ্ববিদ্যালয়টি আজ পরিচিতির পাশাপাশি যথেষ্ট সুনাম অর্জনে সক্ষম হয়েছে। প্রাপ্তির খাতায় প্রতিনিয়তই নতুন নতুন পাওয়া যুক্ত হচ্ছে। সেশনজট নিরসন, ডিজিটাল ক্লাসরুম, বিভিন্ন ক্লাব ও সামাজিক সংগঠনের সফল কার্যক্রম, নিরাপদ ক্যাম্পাস এবং নতুন নতুন গবেষণা পত্র প্রকাশ যা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়কে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগামীর জন্য আমাদের প্রত্যাশা- অডিটোরিয়াম, টিএসসি, বাস বৃদ্ধি, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস বর্ধিতকরণ, মন্দির, গবেষণায় বাজেট বাড়ানো ইত্যাদি। যাতে শিক্ষার্থীরা গবেষণার প্রতি বেশি আগ্রহী হয়। এছাড়াও নির্মাণাধীন স্বাধীনতা স্মারক, ড. ওয়াজেদ রিসার্চ এন্ড ট্রেনিং ইন্সটিটিউট, শেখ হাসিনা হলের কাজ দ্রুত সম্পন্ন করা। সবচেয়ে দু:খের বিষয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫ বছরে রোকেয়ার কোনো মুর‍্যাল নেই এবং রোকেয়া স্টাডিজ নামে কোনো বিভাগ খুলা হয় নি। আশা রাখছি খুব দ্রুত স্বপ্ন গুলো বাস্তবে পরিণত হবে এবং পরিপূর্ণরূপে বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে গড়ে উঠেবে।

সাঈদুর জামান বাপ্পি
শিক্ষার্থী, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর।

Facebook Comments Box
Tag :

চেয়ারে বসলেন শ্রীপুর উপজেলার নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান,ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করেন শরিফ খান

‘পরিপূর্ণরূপে বিশ্ববিদ্যালয় হয়ে উঠুক’ – সাঈদুর জামান বাপ্পি

Update Time : ১০:২৪:৪১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় বয়সে নবীন বিশ্ববিদ্যালয় হলেও বিশ্ববিদ্যালয়টি আজ পরিচিতির পাশাপাশি যথেষ্ট সুনাম অর্জনে সক্ষম হয়েছে। প্রাপ্তির খাতায় প্রতিনিয়তই নতুন নতুন পাওয়া যুক্ত হচ্ছে। সেশনজট নিরসন, ডিজিটাল ক্লাসরুম, বিভিন্ন ক্লাব ও সামাজিক সংগঠনের সফল কার্যক্রম, নিরাপদ ক্যাম্পাস এবং নতুন নতুন গবেষণা পত্র প্রকাশ যা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়কে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগামীর জন্য আমাদের প্রত্যাশা- অডিটোরিয়াম, টিএসসি, বাস বৃদ্ধি, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস বর্ধিতকরণ, মন্দির, গবেষণায় বাজেট বাড়ানো ইত্যাদি। যাতে শিক্ষার্থীরা গবেষণার প্রতি বেশি আগ্রহী হয়। এছাড়াও নির্মাণাধীন স্বাধীনতা স্মারক, ড. ওয়াজেদ রিসার্চ এন্ড ট্রেনিং ইন্সটিটিউট, শেখ হাসিনা হলের কাজ দ্রুত সম্পন্ন করা। সবচেয়ে দু:খের বিষয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫ বছরে রোকেয়ার কোনো মুর‍্যাল নেই এবং রোকেয়া স্টাডিজ নামে কোনো বিভাগ খুলা হয় নি। আশা রাখছি খুব দ্রুত স্বপ্ন গুলো বাস্তবে পরিণত হবে এবং পরিপূর্ণরূপে বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে গড়ে উঠেবে।

সাঈদুর জামান বাপ্পি
শিক্ষার্থী, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর।

Facebook Comments Box