ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন আমি ৯৬ সালের রফিকুল ইসলাম নই, আমি ২৪ সালের রফিকুল ইসলাম স্ত্রী নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে প্রবাসী খোরশেদ আলমের সাংবাদিক সম্মেলন শাহরাস্তিতে জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন মৌসুমি সরকার শাহরাস্তিতে দেবরের কোদালের কোপে ভাবির মৃত্যু প্রিয় নেতাকে বিজয়ী করতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে শরিফ খান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মৌসুমিকে বিজয়ী করতে চায় জনগণ আবদুল জলিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হবেন বলে জানালেন সাধারণ জনতা

ফরিদগঞ্জের সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের ভূমি কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিম বরখাস্ত

রুহুল আমিন খান স্বপনঃ

চাঁদপুরের জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৪নং সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের ভূমি অফিসের ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিমকে ঘুষ কেলেঙ্কারীর অভিযোগে শাস্তিমুলক বদলীসহ সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সেই সাথে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে । গতকাল রোববার চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান এই আদেশ জারি করেন। এটি নিশ্চিত করেন চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার ।

জানা যায়,সম্প্রতি সুবিদপুর ইউনিয়নের গুপটি মৌজার সেবা গ্রহিতা জনৈক মো.শহিদুল্লাহর ২০ শতাংশ জমির খারিজ করাতে গিয়ে ৭০ হাজার টাকা ঘুষ চান ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিম। পরে ৪৫ হাজার টাকা ঘুষ দেওয়া হলেও গ্রাহক শহিদুল্লাহর জমি খারিজ করে না দেওয়ায় তার একটি ভিডিও কৌশলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার বলেন,ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিমের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে ঘুষ বাণিজ্য নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার সাথে সাথে আমরা তাকে সেখান থেকে তাৎক্ষনিক হাইমচরের নীলকমল ইউনিয়নে বদলী করি। পরে আজ রোববার সাময়িক বরখাস্ত করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করি।

তবে এর আগে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক নির্দেশে ফরিদগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)মাধ্যমে বিষয়টি তদন্ত করে নিশ্চিত হওয়ার সাথে সাথে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

জানা যায়,সম্প্রতি সুবিদপুর ইউনিয়নের গুপটি মৌজার সেবা গ্রহিতা জনৈক মো.শহিদুল্লাহর ২০ শতাংশ জমির খারিজ করাতে গিয়ে ৭০ হাজার টাকা ঘুষ চান ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিম। পরে ৪৫ হাজার টাকা ঘুষ দেওয়া হলেও গ্রাহক শহিদুল্লাহর জমি খারিজ করে না দেওয়ায় তার একটি ভিডিও কৌশলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

Facebook Comments Box
Tag :

মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন

ফরিদগঞ্জের সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের ভূমি কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিম বরখাস্ত

Update Time : ০৬:৩৩:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২৩

রুহুল আমিন খান স্বপনঃ

চাঁদপুরের জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৪নং সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের ভূমি অফিসের ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিমকে ঘুষ কেলেঙ্কারীর অভিযোগে শাস্তিমুলক বদলীসহ সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সেই সাথে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে । গতকাল রোববার চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান এই আদেশ জারি করেন। এটি নিশ্চিত করেন চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার ।

জানা যায়,সম্প্রতি সুবিদপুর ইউনিয়নের গুপটি মৌজার সেবা গ্রহিতা জনৈক মো.শহিদুল্লাহর ২০ শতাংশ জমির খারিজ করাতে গিয়ে ৭০ হাজার টাকা ঘুষ চান ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিম। পরে ৪৫ হাজার টাকা ঘুষ দেওয়া হলেও গ্রাহক শহিদুল্লাহর জমি খারিজ করে না দেওয়ায় তার একটি ভিডিও কৌশলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার বলেন,ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিমের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে ঘুষ বাণিজ্য নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার সাথে সাথে আমরা তাকে সেখান থেকে তাৎক্ষনিক হাইমচরের নীলকমল ইউনিয়নে বদলী করি। পরে আজ রোববার সাময়িক বরখাস্ত করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করি।

তবে এর আগে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক নির্দেশে ফরিদগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)মাধ্যমে বিষয়টি তদন্ত করে নিশ্চিত হওয়ার সাথে সাথে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

জানা যায়,সম্প্রতি সুবিদপুর ইউনিয়নের গুপটি মৌজার সেবা গ্রহিতা জনৈক মো.শহিদুল্লাহর ২০ শতাংশ জমির খারিজ করাতে গিয়ে ৭০ হাজার টাকা ঘুষ চান ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিম। পরে ৪৫ হাজার টাকা ঘুষ দেওয়া হলেও গ্রাহক শহিদুল্লাহর জমি খারিজ করে না দেওয়ায় তার একটি ভিডিও কৌশলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

Facebook Comments Box