ঢাকা , শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
শাহরাস্তিতে জাতীয় বীমা দিবস পালিত কেক কাটার মধ্য দিয়ে পাঠক প্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল “প্রিয় চাঁদপুর” এর ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত শাহরাস্তির রায়শ্রী আল-আমিন হাফেজিয়া মাদ্রাসার বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল সম্পন্ন রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদকে ভূষিত হলেন ফরিদগঞ্জের শামছুন্নাহার এসএসসির প্রশ্ন ফাঁস: মনোহরগঞ্জে ২ শিক্ষক জেলে, প্রধান শিক্ষক পলাতক বদলে গেছে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে শ্রীপুরে র‍্যালি ও আলোচনা সভা শাহরাস্তি রেল স্টেশন বাজার কমিটি নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে মো.সাইফুল ইসলাম সকলের দোয়াপ্রার্থী বিডি হিউম্যান অর্গানাইজেশন এর আইসিটি অলিম্পিয়াড বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন  শাহরাস্তিতে পিতা-মাতাকে ঘর থেকে বের করে দেয়ায় গ্রেফতার পুত্র

প্রাণ খুলে স্বপ্নের ওয়াকওয়ে ঘুরে দেখলেন মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম

শাহরাস্তি উপজেলার প্রাণকেন্দ্র ডাকাতিয়ার পাড়ে গড়ে উঠা দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ের নির্মাণ কাজ ঘুরে দেখলেন মহান মুক্তিযুদ্ধের জীবন্ত কিংবদন্তী মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম।

২৯ জুলাই শনিবার দুপুরে কাজের অগ্রগতি স্বচক্ষে দেখতে ছুটে যান তিনি। প্রখর রোদের মাঝে ওয়াকওয়ের বিভিন্ন নির্মাণ কাজ দেখে সন্তুষ্ট প্রকাশ করেন। সূচিপাড়া ব্রিজ থেকে চিখুটিয়া ব্রিজ পর্যন্ত দু-কিলোমিটার এলাকা নিয়ে গড়ে উঠেছে ওয়াকওয়ে। মেজর অবঃ রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় স্বপ্নের বাস্তবায়ন দেখতে ছুটে আসেন প্রশাসনের কর্মকর্তাগন, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম ওয়াকওয়ের পূর্ব প্রান্ত থেকে খোলা অটোতে করে ওয়াকওয়ে পরিদর্শন করেন। অত্যন্ত প্রাণবন্ত হাস্যজ্জল পরিবেশে তিনি নিজে ও বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গের সাথে ছবি তুলেন। কথা বলেন প্রাণ খুলে।

এসময় গনমাধ্যম কর্মীদের তিনি জানান, জনগণের বিনোদনের জন্য ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে, এতে করে নদী রক্ষা, অবৈধ দখল মুক্ত করা, ওয়াকওয়ে গড়ে উঠলে এ এলাকায় বিপুল সংখ্যক কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। তিনি জানান, ওয়াকওয়ের দুপাশে গড়ী পার্কিংয়ের জন্য ৮ তলা বিশিষ্ট দুটি ভবন নির্মাণ করা হবে সেখানে প্রায় ৭/৮ শত গাড়ী পার্কিং করা যাবে। তিনি জানান, ওয়াকওয়ে প্রবেশের জন্য কোন ফ্রি দিতে হবে না। আগামী আগষ্ট মাসে ওয়াকওয়ে উদ্বোধনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। এজন্য তিনি বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তাদের যথা সময়ে কাজ শেষ করার নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, নদী খননের ফলে নদীর পানি স্বচ্ছ হয়েছে, মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। মাছের অবাধ বিচরণ ঘটছে। ওয়াকওয়ে নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হলে জনগণের উপকৃত হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিআইডব্লিউটিএর প্রধান প্রকৌশলী মুহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাজেদুল রহমান, চাঁদপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রজেক্ট ডাইরেক্টর মোঃ আমজাদ হোসেন, শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হুমায়ুন রশিদ, পৌর মেয়র হাজী আব্দুল লতিফ, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল, সাধারণ সম্পাদক স্বপন কর্মকার মিঠুন, উপ সহকারী প্রকৌশলী মোঃ ওমর ফারুক, মোঃ আরিফ হোসেন, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রোপাইটর এস এস রহমান ও তানিয়া নুনা জেবি।

Facebook Comments Box
Tag :
About Author Information

RAFIU HASAN

শাহরাস্তিতে জাতীয় বীমা দিবস পালিত

প্রাণ খুলে স্বপ্নের ওয়াকওয়ে ঘুরে দেখলেন মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম

Update Time : ০৪:৩৯:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুলাই ২০২৩

শাহরাস্তি উপজেলার প্রাণকেন্দ্র ডাকাতিয়ার পাড়ে গড়ে উঠা দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ের নির্মাণ কাজ ঘুরে দেখলেন মহান মুক্তিযুদ্ধের জীবন্ত কিংবদন্তী মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম।

২৯ জুলাই শনিবার দুপুরে কাজের অগ্রগতি স্বচক্ষে দেখতে ছুটে যান তিনি। প্রখর রোদের মাঝে ওয়াকওয়ের বিভিন্ন নির্মাণ কাজ দেখে সন্তুষ্ট প্রকাশ করেন। সূচিপাড়া ব্রিজ থেকে চিখুটিয়া ব্রিজ পর্যন্ত দু-কিলোমিটার এলাকা নিয়ে গড়ে উঠেছে ওয়াকওয়ে। মেজর অবঃ রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় স্বপ্নের বাস্তবায়ন দেখতে ছুটে আসেন প্রশাসনের কর্মকর্তাগন, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম ওয়াকওয়ের পূর্ব প্রান্ত থেকে খোলা অটোতে করে ওয়াকওয়ে পরিদর্শন করেন। অত্যন্ত প্রাণবন্ত হাস্যজ্জল পরিবেশে তিনি নিজে ও বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গের সাথে ছবি তুলেন। কথা বলেন প্রাণ খুলে।

এসময় গনমাধ্যম কর্মীদের তিনি জানান, জনগণের বিনোদনের জন্য ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে, এতে করে নদী রক্ষা, অবৈধ দখল মুক্ত করা, ওয়াকওয়ে গড়ে উঠলে এ এলাকায় বিপুল সংখ্যক কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। তিনি জানান, ওয়াকওয়ের দুপাশে গড়ী পার্কিংয়ের জন্য ৮ তলা বিশিষ্ট দুটি ভবন নির্মাণ করা হবে সেখানে প্রায় ৭/৮ শত গাড়ী পার্কিং করা যাবে। তিনি জানান, ওয়াকওয়ে প্রবেশের জন্য কোন ফ্রি দিতে হবে না। আগামী আগষ্ট মাসে ওয়াকওয়ে উদ্বোধনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। এজন্য তিনি বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তাদের যথা সময়ে কাজ শেষ করার নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, নদী খননের ফলে নদীর পানি স্বচ্ছ হয়েছে, মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। মাছের অবাধ বিচরণ ঘটছে। ওয়াকওয়ে নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হলে জনগণের উপকৃত হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিআইডব্লিউটিএর প্রধান প্রকৌশলী মুহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাজেদুল রহমান, চাঁদপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রজেক্ট ডাইরেক্টর মোঃ আমজাদ হোসেন, শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হুমায়ুন রশিদ, পৌর মেয়র হাজী আব্দুল লতিফ, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল, সাধারণ সম্পাদক স্বপন কর্মকার মিঠুন, উপ সহকারী প্রকৌশলী মোঃ ওমর ফারুক, মোঃ আরিফ হোসেন, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রোপাইটর এস এস রহমান ও তানিয়া নুনা জেবি।

Facebook Comments Box