ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন আমি ৯৬ সালের রফিকুল ইসলাম নই, আমি ২৪ সালের রফিকুল ইসলাম স্ত্রী নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে প্রবাসী খোরশেদ আলমের সাংবাদিক সম্মেলন শাহরাস্তিতে জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন মৌসুমি সরকার শাহরাস্তিতে দেবরের কোদালের কোপে ভাবির মৃত্যু প্রিয় নেতাকে বিজয়ী করতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে শরিফ খান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মৌসুমিকে বিজয়ী করতে চায় জনগণ আবদুল জলিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হবেন বলে জানালেন সাধারণ জনতা

ব্যাপক উৎসাহ, উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরবিদশে দোহায় বাংলা নবর্বষ- ১৪৩০ উদযাপন

ইউসুফ পাটোয়ারী লিংকন, কাতারঃ

বপিুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদশেদিরে স্বতঃর্স্ফূত অংশগ্রহণে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় বাংলাদশে দূতাবাস ও বাংলাদশে এমএইচএম স্কুল ও কলজে এর যৌথ আয়োজনে দুই দনি ব্যাপী বাংলা র্বষবরণ উৎসব ১৪৩০ উদযাপতি হয়।

র্বষবরণ উপলক্ষ্যে বাংলাদশে এমএইচএম স্কুল ও কলজে প্রাঙ্গন বিভিন্ন রঙ বেরেং এর ব্যানার, ফেস্টেুন, বৈশাখী আলপনা, দেশীয় পালকি ও প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী ঢেঁকি দিয়ে র্বণিল সাজে সাজানো হয়। প্রবাসী বাংলাদেশি পরিবার, বাংলাদেশ এমএইচএম স্কুল ও কলেজ এর ছাত্র-ছাত্রী, শিশু-কিশোরসহ র্সবস্তরের বাংলাদেশীগণ এবং দূতাবাসের সদস্যরা বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী পোষাকে সজ্জিত হয়ে এতে অংশগ্রহণ করনে।

র্বষবরণ উপলক্ষ্যে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতকি অনুষ্ঠান ও বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হয়। প্রবাসী বাংলাদেশীরা তাঁদের স্টলসমূহে বাংলাদেশি খাবার, মিষ্টান্ন, তজৈসপত্র, হস্তশল্পি, শাড়ী, মনোহরী দ্রব্য, অলংকার সামগ্রী, খলেনা এবং আল্পনা সহকারে বাংলাদশেকে ফুটিয়ে তোলনে। দূতাবাসের স্টলে বিভিন্ন ভাষায় অনূদিত বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ঐতিহ্যবাহী দেশীয় পণ্যরে প্রর্দশন করা হয়। এ ছাড়াও মেলায় দূতাবাস র্কতৃক কনস্যুলার সেবা প্রদান করা হয়।

দূতাবাস পরিবার ও বাংলাদেশ এমএইচএম স্কুল ও কলজে এর শিক্ষার্থী এবং প্রবাসী বাংলাদশেীদরে স্বতঃর্স্ফূত অংশগ্রহণে বাংলাদশেী গান ও দৃষ্টিনন্দন নাচের মাধ্যমে দেশীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে অতিথিদের সামনে তুলে ধরা হয়। ‘এসো হে বশৈাখ এসো এসো’ গানটি সম্মলিতি কণ্ঠে পরিবেশনার মাধ্যমে নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়া হয়।

মনোজ্ঞ বৈশাখী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দূতাবাসের সদস্যবৃন্দ, বাংলাদেশ এমএইচএম স্কুল ও কলেজ এর শিক্ষার্থীবৃন্দ এবং প্রবাসী বাংলাদেশীদের সাংস্কৃতিক সংগঠন- বৈশাখী, শ্রাবণ, চরিন্তন বাউল ও অনন্যা -বৈশাখী ও লোকজ সংগীত, কবিতা, নৃত্য ইত্যাদি পরিবেশন করেন। এ ছাড়াও যেমন খুশি তেমন সাজো ও র‍্যাফেল ড্রর আয়োজন করা হয়।

এর আগে কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম দূতাবাসের র্কমর্কতা- র্কমচারীসহ র্সবস্তররে প্রবাসী বাংলাদেশীদের উপস্থতিতে বিকাল ০৫ ঘটিকায় বাংলা র্বষবরণ উৎসবের উদ্বোধন করেন।

বাংলাদশেরে রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম তাঁর স্বাগত বক্তব্যে বাংলা র্বষবরণ উৎসবে আগত অতিথিদেরকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং র্আথ-সামাজিক উন্নয়ন র্সম্পকে অবহতি করনে।  তিনি উপস্থিতি সকলকে বাংলাদেশের কৃষ্টি কালচার সংস্কৃতি বিদেশের মাটিতে তুলে ধরার আহবান জানান। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নত ও র্স্মাট বাংলাদশে তথা জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গঠনে সকল প্রবাসীদের আরো বেশি অবদান রাখার আহবান জানান।

Facebook Comments Box
Tag :

মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন

ব্যাপক উৎসাহ, উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরবিদশে দোহায় বাংলা নবর্বষ- ১৪৩০ উদযাপন

Update Time : ১১:৪৭:১৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩ জুলাই ২০২৩

ইউসুফ পাটোয়ারী লিংকন, কাতারঃ

বপিুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদশেদিরে স্বতঃর্স্ফূত অংশগ্রহণে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় বাংলাদশে দূতাবাস ও বাংলাদশে এমএইচএম স্কুল ও কলজে এর যৌথ আয়োজনে দুই দনি ব্যাপী বাংলা র্বষবরণ উৎসব ১৪৩০ উদযাপতি হয়।

র্বষবরণ উপলক্ষ্যে বাংলাদশে এমএইচএম স্কুল ও কলজে প্রাঙ্গন বিভিন্ন রঙ বেরেং এর ব্যানার, ফেস্টেুন, বৈশাখী আলপনা, দেশীয় পালকি ও প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী ঢেঁকি দিয়ে র্বণিল সাজে সাজানো হয়। প্রবাসী বাংলাদেশি পরিবার, বাংলাদেশ এমএইচএম স্কুল ও কলেজ এর ছাত্র-ছাত্রী, শিশু-কিশোরসহ র্সবস্তরের বাংলাদেশীগণ এবং দূতাবাসের সদস্যরা বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী পোষাকে সজ্জিত হয়ে এতে অংশগ্রহণ করনে।

র্বষবরণ উপলক্ষ্যে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতকি অনুষ্ঠান ও বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হয়। প্রবাসী বাংলাদেশীরা তাঁদের স্টলসমূহে বাংলাদেশি খাবার, মিষ্টান্ন, তজৈসপত্র, হস্তশল্পি, শাড়ী, মনোহরী দ্রব্য, অলংকার সামগ্রী, খলেনা এবং আল্পনা সহকারে বাংলাদশেকে ফুটিয়ে তোলনে। দূতাবাসের স্টলে বিভিন্ন ভাষায় অনূদিত বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ঐতিহ্যবাহী দেশীয় পণ্যরে প্রর্দশন করা হয়। এ ছাড়াও মেলায় দূতাবাস র্কতৃক কনস্যুলার সেবা প্রদান করা হয়।

দূতাবাস পরিবার ও বাংলাদেশ এমএইচএম স্কুল ও কলজে এর শিক্ষার্থী এবং প্রবাসী বাংলাদশেীদরে স্বতঃর্স্ফূত অংশগ্রহণে বাংলাদশেী গান ও দৃষ্টিনন্দন নাচের মাধ্যমে দেশীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে অতিথিদের সামনে তুলে ধরা হয়। ‘এসো হে বশৈাখ এসো এসো’ গানটি সম্মলিতি কণ্ঠে পরিবেশনার মাধ্যমে নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়া হয়।

মনোজ্ঞ বৈশাখী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দূতাবাসের সদস্যবৃন্দ, বাংলাদেশ এমএইচএম স্কুল ও কলেজ এর শিক্ষার্থীবৃন্দ এবং প্রবাসী বাংলাদেশীদের সাংস্কৃতিক সংগঠন- বৈশাখী, শ্রাবণ, চরিন্তন বাউল ও অনন্যা -বৈশাখী ও লোকজ সংগীত, কবিতা, নৃত্য ইত্যাদি পরিবেশন করেন। এ ছাড়াও যেমন খুশি তেমন সাজো ও র‍্যাফেল ড্রর আয়োজন করা হয়।

এর আগে কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম দূতাবাসের র্কমর্কতা- র্কমচারীসহ র্সবস্তররে প্রবাসী বাংলাদেশীদের উপস্থতিতে বিকাল ০৫ ঘটিকায় বাংলা র্বষবরণ উৎসবের উদ্বোধন করেন।

বাংলাদশেরে রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম তাঁর স্বাগত বক্তব্যে বাংলা র্বষবরণ উৎসবে আগত অতিথিদেরকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং র্আথ-সামাজিক উন্নয়ন র্সম্পকে অবহতি করনে।  তিনি উপস্থিতি সকলকে বাংলাদেশের কৃষ্টি কালচার সংস্কৃতি বিদেশের মাটিতে তুলে ধরার আহবান জানান। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নত ও র্স্মাট বাংলাদশে তথা জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গঠনে সকল প্রবাসীদের আরো বেশি অবদান রাখার আহবান জানান।

Facebook Comments Box