ঢাকা , মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন মৌসুমি সরকার শাহরাস্তিতে দেবরের কোদালের কোপে ভাবির মৃত্যু প্রিয় নেতাকে বিজয়ী করতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে শরিফ খান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মৌসুমিকে বিজয়ী করতে চায় জনগণ আবদুল জলিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হবেন বলে জানালেন সাধারণ জনতা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মৌসুমী সরকার শাহরাস্তি উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ওমর ফারুক রুমির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় শাহরাস্তিতে সাংবাদিকদের সাথে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ ইরানের মতবিনিময় শাহরাস্তিতে সাংবাদিকদের সাথে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজমুন নাহার স্বপ্নার মতবিনিময়

ফরিদগঞ্জে ক্লাসে ঢুকে শিক্ষককে পেটালেন অভিভাবক

রহুল আমিন খাঁন স্বপনঃ চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে মাদ্রাসায় ঢুকে এক শিক্ষককে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (১৬ মে) সকালে বোয়ালিয়া নুরানী হাফেজিয়া মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টির বিচার প্রার্থনা করে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে মাদ্রাসা কতৃপক্ষ। অভিযুক্তদের বিচারের আওতায় আনার জন্য সংলিষ্ট বিচার বিভাগের হস্তক্ষেপ কামনা করছে স্থানীয়রা।

মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার সকালে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিচ্ছিলেন ওই মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক আলী আজগর। এ সময় হঠাৎ করে অভিযুক্ত অভিভাবক কাজী জসিম উদ্দিন ও কাজী আল আমিন মাদ্রাসার ক্লাস রুমে ঢুকে শিক্ষার্থীদের সামনে শিক্ষককে মারধর করে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ ও ভাঙচুর করার হুমকি দেন।

জানা গেছে, অভিযুক্ত জসিম উদ্দিন ওই মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক। মাদ্রাসার নিয়মশৃঙ্খলা না মেনে তাঁর ছেলে ছুটি কাটিয়েছে। এতে শিক্ষার্থীকে হুজুর শাসন করার কারণে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে শিক্ষককে মারধর করেন।

মারধরের শিকার শিক্ষক আলী আজগর বলেন, ‘আমি ক্লাসে পড়ানোর সময় হঠাৎ করে ক্লাসে এসে আমাকে মারধর করা শুরু করেছে।

এ বিষয়ে মাদ্রাসার কোষাধ্যক্ষ মো. ইসমাইল হোসেন বলেন, ‘হুজুর দীর্ঘদিন আমাদের মাদ্রাসায় চাকরি করে আসছেন। কেন তিনি মারধরের শিকার হলেন, আমরা এর সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তদের বিচার দাবি করছি। বর্তমানে এ ঘটনায় এলাকা জুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে।’

অভিযুক্ত কাজী জসিম উদ্দিন বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‘আমি ওই মাদ্রাসার অভিভাবক। আমার ছেলে ঢাকাতে গিয়েছিল। আসার পর শিক্ষক আমার ছেলেকে মেরেছে, তাই আমি রাগে তাঁকে মেরেছি।

ছুটির জন্য আবেদন করেছেন কি না, এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এমন কোনো বিষয় আমার জানা নেই।

এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মান্নান বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Facebook Comments Box
Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ

ফরিদগঞ্জে ক্লাসে ঢুকে শিক্ষককে পেটালেন অভিভাবক

Update Time : ০৩:১২:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ মে ২০২৩

রহুল আমিন খাঁন স্বপনঃ চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে মাদ্রাসায় ঢুকে এক শিক্ষককে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (১৬ মে) সকালে বোয়ালিয়া নুরানী হাফেজিয়া মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টির বিচার প্রার্থনা করে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে মাদ্রাসা কতৃপক্ষ। অভিযুক্তদের বিচারের আওতায় আনার জন্য সংলিষ্ট বিচার বিভাগের হস্তক্ষেপ কামনা করছে স্থানীয়রা।

মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার সকালে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিচ্ছিলেন ওই মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক আলী আজগর। এ সময় হঠাৎ করে অভিযুক্ত অভিভাবক কাজী জসিম উদ্দিন ও কাজী আল আমিন মাদ্রাসার ক্লাস রুমে ঢুকে শিক্ষার্থীদের সামনে শিক্ষককে মারধর করে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ ও ভাঙচুর করার হুমকি দেন।

জানা গেছে, অভিযুক্ত জসিম উদ্দিন ওই মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক। মাদ্রাসার নিয়মশৃঙ্খলা না মেনে তাঁর ছেলে ছুটি কাটিয়েছে। এতে শিক্ষার্থীকে হুজুর শাসন করার কারণে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে শিক্ষককে মারধর করেন।

মারধরের শিকার শিক্ষক আলী আজগর বলেন, ‘আমি ক্লাসে পড়ানোর সময় হঠাৎ করে ক্লাসে এসে আমাকে মারধর করা শুরু করেছে।

এ বিষয়ে মাদ্রাসার কোষাধ্যক্ষ মো. ইসমাইল হোসেন বলেন, ‘হুজুর দীর্ঘদিন আমাদের মাদ্রাসায় চাকরি করে আসছেন। কেন তিনি মারধরের শিকার হলেন, আমরা এর সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তদের বিচার দাবি করছি। বর্তমানে এ ঘটনায় এলাকা জুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে।’

অভিযুক্ত কাজী জসিম উদ্দিন বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‘আমি ওই মাদ্রাসার অভিভাবক। আমার ছেলে ঢাকাতে গিয়েছিল। আসার পর শিক্ষক আমার ছেলেকে মেরেছে, তাই আমি রাগে তাঁকে মেরেছি।

ছুটির জন্য আবেদন করেছেন কি না, এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এমন কোনো বিষয় আমার জানা নেই।

এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মান্নান বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Facebook Comments Box