ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন আমি ৯৬ সালের রফিকুল ইসলাম নই, আমি ২৪ সালের রফিকুল ইসলাম স্ত্রী নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে প্রবাসী খোরশেদ আলমের সাংবাদিক সম্মেলন শাহরাস্তিতে জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন মৌসুমি সরকার শাহরাস্তিতে দেবরের কোদালের কোপে ভাবির মৃত্যু প্রিয় নেতাকে বিজয়ী করতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে শরিফ খান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মৌসুমিকে বিজয়ী করতে চায় জনগণ আবদুল জলিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হবেন বলে জানালেন সাধারণ জনতা

হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অ্যাম্বুলেন্স আছে, ড্রাইভার নাই!

  • রিয়াজ শাওন
  • Update Time : ১১:৫৬:২৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩
  • ৫১১৬১ Time View

হাজীগঞ্জের ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন শীততাপ নিয়ন্ত্রিত একটি অ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার না থাকায়, দীর্ঘদিন ধরে অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে। এতে একদিকে যেমন সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সেবা প্রত্যাশীরা। অন্যদিকে দীর্ঘদিন অব্যবহৃত থাকায় অযত্নে-অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে অ্যাম্বুলেন্সে। দেখা দিচ্ছে বিভিন্ন যান্ত্রিক ত্রুটি।

জানা যায়, স্বাস্থ্যসেবা জনগনের দৌরগোড়ায় নিশ্চিতকরণ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উপহার হিসেবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নতুন এ্যাম্বুলেন্স প্রদান করা হয়। যা ২০১৮ সালের ২২ অক্টোবর স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, কেন্দ্রিয় ঔষাধাগার (সিএমএসডি), তেজগাঁও, ঢাকা হতে গ্রহণ করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। এর পরের দিন ২৩ অক্টোবর চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য আনুষ্ঠানিকভাবে এ্যাম্বুলেন্সটি উদ্বোধন করেন।

আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন শীততাপ নিয়ন্ত্রিত একটি সরকারি অ্যাম্বুলেন্স থাকা সত্বেও শুধুমাত্র ড্রাইভার এর অভাবে। সরকারি এই অ্যাম্বুলেন্সের কোন সেবাই পাচ্ছেন না উপজেলার সেবা প্রত্যাশীরা। সরকারি সম্পত্তি এভাবে ফেলে রেখে নষ্ট না করে জনগণের কল্যাণে ব্যবহার করার দাবি জানিয়েছেন সেবা প্রত্যাশী।

এই বিষয়ে হাজীগঞ্জ উপজেলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ গোলাম মাওলা বলেন, আমাদের হাসপাতালে ডাইভারের পোস্টিং আছে, কিন্তু এই মুহূর্তে কোন ড্রাইভার নেই। সরকার যখন ড্রাইভার দিবে তখনই আমরা ড্রাইভার পাবো। তাছাড়া এত দামি গাড়ি আমরা যার তার হতে তুলে দিতে পারি না।

চাঁদপুর জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ শাহাদাৎ হোসেন বলেন, সরকারি চালক ছাড়া অন্য কোন চালোকে দেওয়া যাবে না। তাছাড়া আমাদের ডাইভারের সংকট আছে। পুরো জেলাতেই অ্যাম্বুলেন্স ডাইভারের সংকট রয়েছে । তবে আশা করি আমরা খুব শীঘ্রই এই সমস্যা কাটিয়ে উঠব। আমরা চেষ্টা করবো অন্য কোন সোর্স থেকে অ্যাম্বুলেন্স দেওয়ার জন্য। তবে এতদিন ছিলো।

Facebook Comments Box
Tag :

মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন

হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অ্যাম্বুলেন্স আছে, ড্রাইভার নাই!

Update Time : ১১:৫৬:২৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩

হাজীগঞ্জের ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন শীততাপ নিয়ন্ত্রিত একটি অ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার না থাকায়, দীর্ঘদিন ধরে অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে। এতে একদিকে যেমন সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সেবা প্রত্যাশীরা। অন্যদিকে দীর্ঘদিন অব্যবহৃত থাকায় অযত্নে-অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে অ্যাম্বুলেন্সে। দেখা দিচ্ছে বিভিন্ন যান্ত্রিক ত্রুটি।

জানা যায়, স্বাস্থ্যসেবা জনগনের দৌরগোড়ায় নিশ্চিতকরণ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উপহার হিসেবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নতুন এ্যাম্বুলেন্স প্রদান করা হয়। যা ২০১৮ সালের ২২ অক্টোবর স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, কেন্দ্রিয় ঔষাধাগার (সিএমএসডি), তেজগাঁও, ঢাকা হতে গ্রহণ করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। এর পরের দিন ২৩ অক্টোবর চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য আনুষ্ঠানিকভাবে এ্যাম্বুলেন্সটি উদ্বোধন করেন।

আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন শীততাপ নিয়ন্ত্রিত একটি সরকারি অ্যাম্বুলেন্স থাকা সত্বেও শুধুমাত্র ড্রাইভার এর অভাবে। সরকারি এই অ্যাম্বুলেন্সের কোন সেবাই পাচ্ছেন না উপজেলার সেবা প্রত্যাশীরা। সরকারি সম্পত্তি এভাবে ফেলে রেখে নষ্ট না করে জনগণের কল্যাণে ব্যবহার করার দাবি জানিয়েছেন সেবা প্রত্যাশী।

এই বিষয়ে হাজীগঞ্জ উপজেলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ গোলাম মাওলা বলেন, আমাদের হাসপাতালে ডাইভারের পোস্টিং আছে, কিন্তু এই মুহূর্তে কোন ড্রাইভার নেই। সরকার যখন ড্রাইভার দিবে তখনই আমরা ড্রাইভার পাবো। তাছাড়া এত দামি গাড়ি আমরা যার তার হতে তুলে দিতে পারি না।

চাঁদপুর জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ শাহাদাৎ হোসেন বলেন, সরকারি চালক ছাড়া অন্য কোন চালোকে দেওয়া যাবে না। তাছাড়া আমাদের ডাইভারের সংকট আছে। পুরো জেলাতেই অ্যাম্বুলেন্স ডাইভারের সংকট রয়েছে । তবে আশা করি আমরা খুব শীঘ্রই এই সমস্যা কাটিয়ে উঠব। আমরা চেষ্টা করবো অন্য কোন সোর্স থেকে অ্যাম্বুলেন্স দেওয়ার জন্য। তবে এতদিন ছিলো।

Facebook Comments Box