ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন আমি ৯৬ সালের রফিকুল ইসলাম নই, আমি ২৪ সালের রফিকুল ইসলাম স্ত্রী নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে প্রবাসী খোরশেদ আলমের সাংবাদিক সম্মেলন শাহরাস্তিতে জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত শাহরাস্তি ক্রিকেট একাডেমীর আয়োজনে ট্যালেন্ট হান্টের পর্দা উঠলো আজ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন মৌসুমি সরকার শাহরাস্তিতে দেবরের কোদালের কোপে ভাবির মৃত্যু প্রিয় নেতাকে বিজয়ী করতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে শরিফ খান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মৌসুমিকে বিজয়ী করতে চায় জনগণ আবদুল জলিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হবেন বলে জানালেন সাধারণ জনতা

কবিতার সমাহার- “চাঁদ আর মাধবীলতার সখ্যতা”

“চাঁদ আর মাধবীলতার সখ্যতা”
স্বপ্না রহমান

মাধবীলতা আর চাঁদের সখ্যতা যেনো অস্পর্শী-বিমূর্ত
যতদূরেই থাকি না কেনো মনটা সুতোয় গাঁথা
আসমানের ঐ কালো মেঘের ওপরে চাঁদ
তাও তুমি দিতে পারো মানবকূলে জোস্নার স্বাদ।।

তোমাকে নিয়ে কত গল্প, কত কবিতা
কেউবা আবার আবীর রাঙায় নিজের পায়
সেই দূর-দূরান্ত থেকে মাধবীলতা তোমার অপেক্ষায়
বেঁচে থাকে জোস্নার আলোয় যেনো অস্পর্শী
মাধবীলতার দায়—-।।

চাঁদের কলঙ্ক আছে জানি সবার জানা
যখন সে পূর্ণিমা নিয়ে আঁধার কাঁটায়
জোস্নার আলোয় ভর্তি থাকে রাতের শেষ বেলা
ভোর গড়িয়ে সকাল মাধবী ফুল গুলো যেনো
বরণ ঢালা সাজিয়ে অপেক্ষায় বিরাজমান।।

আসমানী হয়ে আকাশ পানে থাকো তুমি সুখে
তারা হয়ে জ্বলে উঠবো তোমার আকাশের বুকে
মাধবীলতা শিকড় নিয়ে মাটির কূলে ই আনাগোনা
সমাজ সংসারে তোমার শেখানো নিয়মে
ঝাপটে মেলছে তার ডানা।।

মাধবীলতার সৌন্দর্য আর গুনে মুগ্ধ সবাই
জীবনের ছোটো পরিসরে যা পেয়েছে মাধবী
একই বৃন্তে হরেক রকমের ফুল
কলঙ্কিত চাঁদের জোস্নার আলোয় নিঃশব্দে মাধবী ফুল।।

চাঁদের কলঙ্ক হাজারো থাকুক
মাধবীকে আবীর দিয়ে রাঙানো আমার কাজ
তোকে একা করে যেতে পারিনি বলে
এখনো বাঁচিয়ে রেখেছে স্রষ্টা আমায়
এই পৃথিবীর বুকে বলিতে নাহি লাজ।।

Facebook Comments Box
Tag :

মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের নির্দেশে উয়ারুকে থামবে আইদি পরিবহন

কবিতার সমাহার- “চাঁদ আর মাধবীলতার সখ্যতা”

Update Time : ১২:২৯:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩

“চাঁদ আর মাধবীলতার সখ্যতা”
স্বপ্না রহমান

মাধবীলতা আর চাঁদের সখ্যতা যেনো অস্পর্শী-বিমূর্ত
যতদূরেই থাকি না কেনো মনটা সুতোয় গাঁথা
আসমানের ঐ কালো মেঘের ওপরে চাঁদ
তাও তুমি দিতে পারো মানবকূলে জোস্নার স্বাদ।।

তোমাকে নিয়ে কত গল্প, কত কবিতা
কেউবা আবার আবীর রাঙায় নিজের পায়
সেই দূর-দূরান্ত থেকে মাধবীলতা তোমার অপেক্ষায়
বেঁচে থাকে জোস্নার আলোয় যেনো অস্পর্শী
মাধবীলতার দায়—-।।

চাঁদের কলঙ্ক আছে জানি সবার জানা
যখন সে পূর্ণিমা নিয়ে আঁধার কাঁটায়
জোস্নার আলোয় ভর্তি থাকে রাতের শেষ বেলা
ভোর গড়িয়ে সকাল মাধবী ফুল গুলো যেনো
বরণ ঢালা সাজিয়ে অপেক্ষায় বিরাজমান।।

আসমানী হয়ে আকাশ পানে থাকো তুমি সুখে
তারা হয়ে জ্বলে উঠবো তোমার আকাশের বুকে
মাধবীলতা শিকড় নিয়ে মাটির কূলে ই আনাগোনা
সমাজ সংসারে তোমার শেখানো নিয়মে
ঝাপটে মেলছে তার ডানা।।

মাধবীলতার সৌন্দর্য আর গুনে মুগ্ধ সবাই
জীবনের ছোটো পরিসরে যা পেয়েছে মাধবী
একই বৃন্তে হরেক রকমের ফুল
কলঙ্কিত চাঁদের জোস্নার আলোয় নিঃশব্দে মাধবী ফুল।।

চাঁদের কলঙ্ক হাজারো থাকুক
মাধবীকে আবীর দিয়ে রাঙানো আমার কাজ
তোকে একা করে যেতে পারিনি বলে
এখনো বাঁচিয়ে রেখেছে স্রষ্টা আমায়
এই পৃথিবীর বুকে বলিতে নাহি লাজ।।

Facebook Comments Box